শীতের আমেজের মধ্যেই আসছে নিম্নচাপ, বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল আবহাওয়া দপ্তর

শীতের আমেজের মধ্যেই আসছে নিম্নচাপ, বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল আবহাওয়া দপ্তর

কালীপুজোর পর থেকেই কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে শীতের আমেজ। তবে এখনো জাঁকিয়ে শীত পড়েনি। তবে ডিসেম্বরের আগে জাঁকিয়ে শীত পড়বেনা জানিয়ে দিয়েছে। তবে রাত ও ভোরের দিকে তাপমাত্রার পারদ ভালোই কমছে। এরমধ্যেই রাজ্যের কয়েকটি জেলায় সপ্তাহন্তে বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল আবহাওয়া দফতর। হাওয়া অফিসের তরফে জানানো হয়েছে, বঙ্গোপসাগরে ইতিমধ্যে নিম্নচাপ তৈরির পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে।

আগামী ২৪ ঘণ্টায় এই গভীর নিম্নচাপ পশ্চিম ও উত্তর পশ্চিম দিকে এগিয়ে গিয়েছে। তবে এর প্রভাব সরাসরি বাংলার ওপর পড়বেনা। চলতি মাসের ১৩ ও ১৪ তারিখ উপকূলীয় জেলাগুলিতে খুব সামান্য বা মাঝারি বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা আছে। বাদবাকি জেলাগুলিতে মেঘলা আকাশ থাকবে। তবে এর ফলে পূবালী হাওয়ায় প্রচুর জলীয় বাষ্প ঢুকতে পারে রাজ্যে। বৃহস্পতিবার থেকে কমবে উত্তুরে হাওয়ার প্রভাব। ইতিমধ্যে জেলায় জেলায় তাপমাত্রা কমছে। ১৪-১৬ ডিগ্রির আশেপাশে ঘোরাফেরা করছে দক্ষিণবঙ্গে। সকালের দিকে কোথাও কোথাও কুয়াশাও পড়ছে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, পশ্চিমবঙ্গ, বিহার, ঝাড়খণ্ড, ওড়িশা ও সিকিমের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে আবহাওয়া মূলত শুষ্ক থাকবে। পাশাপাশি উত্তরবঙ্গে আগামী কয়েকদিন আবহাওয়া শুষ্ক থাকবে। এর মধ্যে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা নেই। তবে আকাশ আংশিক মেঘলা থাকবে। আগামী কয়েক দিনে নিম্নচাপের জেরে তাপমাত্র কিছুটা পতনের সম্ভাবনা রয়েছে।

একনজরে আজকের আবহাওয়ার খবর জেনে নেওয়া যাক। আজকের দিনে কলকাতা শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২১ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে। আর জলীয় আদ্রতার পরিমাণ ৭৭ শতাংশ। সকালের দিকে এবং রাতের দিকে আবছা রোদ থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। এবারে সব বাঙালীর ধীরে ধীরে লেপ কম্বল বের করার সময় হয়ে যাচ্ছে। এর মধ্যে আবহাওয়া বিশেষজ্ঞর জানিয়েছেন, এবছর একদিকে বর্ষা বিদায় নিতে যেমন বেশি সময় নিয়েছে, তেমনই শীত পড়বে এবার বেশ জাঁকিয়ে। গত কয়েক বছরের তুলনায়, এবছর একটু বেশীই শীত পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।