স্কুলের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে পর্ন ভিডিও আপলোড, কাউন্সেলিং চলছে ছাত্রীর

স্কুলের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে পর্ন ভিডিও আপলোড, কাউন্সেলিং চলছে ছাত্রীর


ছবি: প্রতিকী

করোনা আবহের জেরে লকডাউনের কারনে এখন বাড়িতে বসেই অনলাইনে চলছে পড়াশোনা। যেসব ছোট ছোট ছেলেমেয়েদের আজ স্কুলে গিয়ে বন্ধুদের সাথে হাসি খেলায় মেতে পড়াশোনা করার কথা ছিল তারাই আজ পড়াশোনা করছে স্মার্টফোনে মুখ গুঁজে। কিন্তু মে বয়সের শিশুদের স্মার্টফোন থেকে দূরে রাখার পরামর্শ দিতেন মনোবিদরা এখন তাদের হাতে বাধ্য হয়ে মোবাইল ফোন তুলে দেওয়াতে কতটা ক্ষতির মুখে পড়তে হচ্ছে আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে?

হাওয়ার গ্রামীণ এলাকার এক সরকারি স্কুলের ঘটনা আবারও আমাদের সেই প্রশ্নের সামনে দাঁড় করিয়ে দেয়। স্কুলে জীববিজ্ঞান ক্লাস চলাকালীন হঠাৎই পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্রী একটি পর্ণ ভিডিও স্কুলের হোয়াটস অ্যাপ গ্রুপে শেয়ার করে। এরপরেই ওই শিক্ষিকা ক্লাস বন্ধ করে পুরো ঘটনাটি প্রধান শিক্ষিকাকে জানান এবং তারপর ওই প্রধান শিক্ষিকা হাওড়া সাইবার ক্রাইম থানার সাথে যোগাযোগ করেন। বর্তমানে ছাত্রীটির কাউন্সিলিং চলছে।

আরো পড়ুন -  হুড়মুড়িয়ে নামল সোনার দর, ২২-২৪ ক্যারেট সোনার মূল্য কমে গেল ৮৫০০ টাকা, দেখুন বিস্তারিত

স্কুল থেকে ছাত্রীটির সাথে যোগাযোগ করার জন্য একজন প্রতিনিধি পাঠানো হলেও ছাত্রীর মা যোগাযোগ করতে দেয়নি। এরপরেই স্কুল থেকে পুরো ঘটনাটি সাইবার ক্রাইম থানায় জানানো হয়। অবশ্য এই বিষয়ে ছাত্রীর মা প্রধান শিক্ষিকাকে জানান এই ঘটনার দুই দিন আগে তার ফোন চুরি হয়ে গেছে অবশ্য তা নিয়ে তিনি থানায় কোনো অভিযোগ দায়ের করেননি। অন্যদিকে স্কুলের অনান্য ছাত্রীদের অভিভাবকরা এই ঘটনায় বেশ চিন্তা প্রকাশ করেছেন। তাই প্রধান শিক্ষিকা এই ঘটনাটিকে বেশ গুরুত্ব দিয়েছেন আবার এধরনের ঘটনা যেন না ঘটে সেই বিষয়টাও নিশ্চিত করবেন বলে আশ্বস্ত করেছেন। পুলিশ জানিয়েছেন তদন্ত চলছে।

আরো পড়ুন -  আপনার বাড়ীতে ৫০ পয়সার কয়েন আছে? তাহলে আপনি এখনই পেতে পারেন ১ লক্ষ টাকা, রইল বিস্তারিত

হাওড়ার চাইল্ড লাইনের কো অর্ডিনেটর শিশুটির কাউন্সিলিং করছেন তিনি জানান ছাত্রীর হাতে যে স্মার্টফোনটি দেওয়া হয়েছিল, সেটি তার মায়ের। ওই ফোনে পর্ন ভিডিয়ো ছিল বলে আমার মনে হয়েছে। সেই ভিডিয়োটিই স্কুলের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে শেয়ার হয়ে গিয়েছিল অসাবধানতাবশত। ঘটনার পরে ফোন এবং সিমকার্ডটি নষ্ট করে দেওয়া হয়। এক পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী কোনও পর্ন সাইট থেকে ভিডিয়ো ডাউনলোড করে ফোনে সেভ করে রাখবে বলে আমার মনে হয় না। এ ক্ষেত্রে বাবা-মাকে অনেক বেশি সতর্ক থাকতে হবে।’’

আরো পড়ুন -  নির্ভয়ে এই ১৩ টি ভূতের সিনেমা দেখলে আপনি হতে পারেন লাখপতি, রইল বিস্তারিত

সুদেষ্ণাদেবী বলেন, ‘‘বর্তমান পরিস্থিতিতে শিশুদের নানা সমস্যার কথা আমাদের কানে আসে। সেই কারণেই কাউন্সেলিং চালু হয়েছে। তবে, শুধু ছেলেমেয়েদের নেট নিরাপত্তা নিয়ে বোঝালেই হবে না, বাবা-মাকেও ওই বিষয়ে শিক্ষিত হতে হবে। ছেলেমেয়েকে ভাল-খারাপের তফাত বোঝানোর আগে অভিভাবকদের তা বুঝতে হবে।’’

অন্যদিকে শিশু আধিকার রক্ষা কমিশনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে বাচ্চাদের বোঝাতে হবে সারাদিন ধরে নয় শুধুমাত্র প্রয়োজনের সময়তেই স্মার্টফোন ব্যবহার করতে হবে। এমনকি ছেলে-মেয়েরা যখন স্মার্টফোন ব্যবহার করবে তখন তাদের উপর নজর রাখতে হবে। ফোন ব্যবহারের সময় নির্দিষ্ট করে দিতে হবে।