মিঠাইকে ভালোবেসে ফেলছেন উচ্ছেবাবু, সহ্য করতে পারছেন না বৌয়ের অপমান

মিঠাইকে ভালোবেসে ফেলছেন উচ্ছেবাবু, সহ্য করতে পারছেন না বৌয়ের অপমান


জি বাংলার ( Zee Bangla) মিঠাই (Mithai)। ধারাবাহিক শুরুর প্রথম থেকেই প্রত্যেক সপ্তাহে ফার্স্ট গার্ল হয়ে আসছে টিআরপি (TRP) লিস্টে। একের পর এক নতুন নতুন টুইস্ট দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছে। প্রথমে হঠাৎ করে মিঠাই ও সিদ্ধার্থের বিয়ে হয়ে যাওয়া, তারপর সেখান থেকে ডিভোর্স, ডিভোর্স থেকে আবার ডিভোর্সের পর ফুলশয্যা বেশ মজাদার উপস্থাপনায় দেখানো হয়েছে সবকিছুই। ‘ডিভোর্সের পর ফুলশয্যা’ পর্বটি পেরিয়ে ‘নতুন অভিযানে মিঠাই পরিবার।’ ইতিমধ্যেই সামনে এলো আরো নতুন একটি প্রোমো- ‘চিতই পিঠে চমৎকার।’

সিদ্ধার্থ তার কর্পোরেট কোম্পানির জন্য সবচেয়ে দামি প্রজেক্টটা কোম্পানির হাতে এনে দিয়েছে। শুধু তাই নয়, মিঠাই এর বুদ্ধিমত্তার জন্য কোম্পানির পার্টিতে ডিজার্ট পরিবেশন করার জন্য মিষ্টির অর্ডার পেয়েছে তারা। এই কারণেই মিঠাই চায় এমন কোন মিষ্টি পরিবেশন করতে যা কেউ কখনো কোন কর্পোরেট পার্টিতে খায়নি। এইজন্য ভেবেচিন্তে ঠাকুমার পরামর্শে মিঠাই তৈরি করে চিতই পিঠা। সেই পিঠে খেয়ে সকলেই তার সাথে আনন্দে আত্মহারা।

আরো পড়ুন -  'ঢাক বাজা কাঁসর বাজা', শ্রেয়া ঘোষালের গান ভুল গেয়ে হাসির খোরাক হলেন রানু, দেখুন ভিডিও

তবে গরম গরম পিঠে টেস্ট করার উদ্দেশ্যে মিঠাই উচ্ছে বাবুর কর্পোরেট অফিসে একেবারে হাজির হন উনুন নিয়ে। এই দেখে সিদ্ধার্থের প্রিয় বন্ধু তোর্সা মিঠাইকে যা নয় তাই বলে অপমান করে। কিন্তু এই অপমান মেনে নিতে পারেনি সিদ্ধার্থ। অফিস থেকে বাড়ি ফিরে এসে মিঠাই কে বলে কেন সে লোককে অপমান করার সুযোগ দেয়! কেন এমন কাজ করে যাতে তাকে কেউ অপমান করতে পারে। সিদ্ধার্থ আরও বলে,”যখন তোর্সা তোমায় ঐ বাজে বাজে কথাগুলো বলছিল আমি জাস্ট সহ্য করতে পারছিলাম না।” তবে কি মিঠাই কে আস্তে আস্তে ভালোবেসে ফেলেছে সিদ্ধার্থ!

সবকিছু ঠিক থাকলেও শুধুমাত্র পরিবেশনের দিক থেকে সিদ্ধেশ্বর মোদক গ্রুপ আটকে গেলে স্বয়ং অফিসের হেড তাদের হয়ে লড়াই করেন। তার ফলে জিতে যায় মিঠাই এর গ্রুপ। জিতে যাওয়ার পর সিদ্ধার্থ বলে সবকিছু সে দায়িত্ব নিয়ে সামলাবে। তাই সিদ্ধার্থ নতুন প্রজেক্ট হিসাবে এই প্রজেক্টটির নানারকম পরিকল্পনা করেছে। সেই পরিকল্পনা মিঠাইকে বোঝাতে গেলে মিঠাই বকবক করতে শুরু করে। তাই মিঠাইয়ের বকবক যাতে থামানো যায় সেই জন্য সিদ্ধার্থ ফন্দি আটে। টেপ দিয়ে মিঠাইয়ের মুখ আটকে দেয় সে।

ইতিমধ্যেই সামনে এসেছে নতুন প্রোমো। নতুন প্রোমোতে দেখা যাচ্ছে চমক দিয়ে মিঠাই এর সাথে সাথে সিদ্ধার্থ ও মজার ছড়া কাটছে। মিঠাই ছড়া কেটে বলছে,”উচ্ছে বাবুর অফিস পার্টিতে খাওয়াবো চিতই পিঠা।” ওদিক থেকে মিঠাইয়ের পিসি শাশুড়ি মিঠাই সঙ্গে একই তালে তাল মিলিয়ে বলছে,”হরেক স্বাদে ভরা চমক টক-ঝাল আর মিঠে।” সিদ্ধার্থ তারপরেই সুর মিলিয়ে বলে,”তুফান মেল ইনচার্জ তাই করছে আমার ভয়।” আবার মিঠাই সিদ্ধার্থের সুরে সুর মিলিয়ে বলে,”গোপাল আছে সঙ্গে ওগো হবেই হবে জয়।”