মৃত্যুর পর দাহ নাকি কবর দেওয়া হবে! নেট পাড়ায় ট্রোলারদের নিশানায় নুসরত

মৃত্যুর পর দাহ নাকি কবর দেওয়া হবে! নেট পাড়ায় ট্রোলারদের নিশানায় নুসরত


নুসরত জাহান (nusrat jahan) ও ট্রোলিং তো এখন সমার্থক হয়ে গেছে। তাঁর অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর শুনে তাঁর ঘনিষ্ঠ বন্ধুরাও অনেকেই তাঁর থেকে দূরে থাকতে শুরু করেছেন। এবার নেটিজেনরা জানতে চাইলেন, নুসরতের মৃত্যু হলে তাঁর শেষকৃত‍্য কিভাবে সম্পন্ন হবে!

15 ই জুলাই নিজের দুটি ছবি ইন্সটাগ্রামে শেয়ার করে নুসরত লিখেছেন, মানবজমিনে তিনি একটু সার দিলেন, যাতে তারা সঠিকভাবে বেড়ে ওঠে। এরপর দুটি হাসির চিহ্ন জুড়ে দিয়েছেন নুসরত। নুসরতের শেয়ার করা ছবিতে তাঁর পরনে রয়েছে গোলাপি রঙের হল্টারনেক টপ ও চোখে রয়েছে কালো ফ্রেমের চশমা। নুসরত ছবিগুলি শেয়ার করার পরেই তাঁকে ঘিরে শুরু হয় ট্রোলের ঝড়। এক নেটিজেন নুসরতকে জিজ্ঞাসা করেছেন, নুসরতের মৃত্যুর পর তাঁকে দাহ করা হবে না দাফন করা হবে।

আরো পড়ুন -  সিঙ্গারা বিক্রি করে গান শিখিয়েছেন বাবা, নেহা কক্করের জীবনী হার মানাবে সিনেমার গল্প

মৃত্যুর পর দাহ নাকি কবর দেওয়া হবে! নেট পাড়ায় ট্রোলারদের নিশানায় নুসরত

এছাড়াও নিখিল জৈন (Nikhil jain)-এর সঙ্গে বিয়ে, যশ দাশগুপ্ত (yash Dasgupta)-র সঙ্গে সম্পর্ক ও অন্তঃসত্ত্বা হওয়া নিয়েও নুসরতকে কটাক্ষ করতে শুরু করেন নেটিজেনরা। এমনকি তাঁকে দেশ থেকে তাড়িয়ে দেওয়ার মতো দাবিও উঠতে শুরু করে। এর মাঝেই প্রতিবাদ করে ওঠেন নুসরতের অনুরাগীরা। তাঁরা নুসরতের প্রতি সম্মান রেখেই কথা বলতে বলেন। অনেকে বলেন, ট্রোলারদের জন্যই নুসরত তাঁর ছবিতে এই ধরনের ক্যাপশন দিয়েছেন।

2020 সালের শেষ দিক থেকে নিখিল ও নুসরতের সম্পর্কে ভাঙন ধরতে শুরু করে। বর্তমানে শোনা যাচ্ছে, যশের সঙ্গে লিভ-ইন করছেন নুসরত। এমনকি নুসরত নিখিলের সঙ্গে নিজের বিয়েকে ‘অবৈধ’ ঘোষণা করে রাজনৈতিক মহলের প্রশ্নের মুখে পড়েছেন। বিজেপি ইতিমধ্যেই নুসরতের সাংসদ পদ বাতিলের দাবি তুলেছে। কারণ সংসদে নিজের ম্যারিটাল স্টেটাসে নুসরত নিজেকে বিবাহিত বলে দাবি করে স্বামী হিসাবে নিখিল জৈনের নাম নথিভুক্ত করেছেন। ফলে বিজেপির দলীয় নেতৃত্ব মনে করছে, নুসরত তাঁর বিয়ে নিয়ে মিথ্যাচার করেছেন। নুসরতের সন্তানের পিতৃত্ব নিয়ে নুসরত এখনও মুখ খোলেননি। বিখ্যাত লেখিকা তসলিমা নাসরিন (Taslima nasreen) নুসরতকে একাই সন্তান বড় করার পরামর্শ দিয়েছেন।