কাছে এসেও ফের দূরে চলে গেলেন যশ-মধুমিতা, দুজনের বিরহে চোখে জল নেটিজেনদের

কাছে এসেও ফের দূরে চলে গেলেন যশ-মধুমিতা, দুজনের বিরহে চোখে জল নেটিজেনদের

সব অপেক্ষার অবসান! যশমিতার বড় পর্দায় প্রথম মিউজিক ভিডিও মুক্তি পেয়েছে। ‘বোঝা না সে বোঝে না’ সেই জনপ্রিয় জুটি পাখি অরণ্য কামব্যাক। রবিবার স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে মুক্তি পেল যশ দাশগুপ্ত ও মধুমিতা সরকারের ‘ও মন রে’। এই জুটিকে আবার একসাথে দেখতে পেয়ে খুশিতে উচ্ছ্বসিত অনুগামীরা। এই গানের অপেক্ষায় প্রহর গুনছিলেন যশমিতার ভক্তরা।

এস ভি এফ এর ব্যানারে এবং বাবা যাদবের পরিচালনায় মুক্তি পেল যশমিতার ম্যাজিক। এই জনপ্রিয় গানটি গেয়েছেন বাংলাদেশের গায়ক তনবীর ইভান। ২ রা আগস্ট কলকাতায় শুরু হয়েছিল এই মিউজিক ভিডিয়োর শ্যুটিং। আর ১৩ দিনের মাথায় মুক্তি পেল এই ভিডিও। এই গানের মূল ইউএসপি ছিল তনভীর ইভানের মাদকতা মেশানো কন্ঠস্বর আর যশ-মধুমিতার না ভোলা রসায়ন।

এই ভিডিয়োর সময়সীমা ছিল ৪ মিনিটের। প্রথমেই ভিডিয়োর শুরুতে দেখানো হয়েছে, ফুল আর আলো দিয়ে বিয়ের সাজানো আসর, লাল বেনারসি আর গয়নাতে সেজে মধুমিতা। আয়নার সামনে চোখের জলে ভাসালেন অভিনেত্রী। ছাতনা তলায় যাওয়ার আগে পুরোনো প্রেম অর্থাৎ চোখের সামনে দেখে নিজের আবেগকে সামলাতে পারেনি অভিনেত্রী। মধুমিতার কান্না, প্রেমিকের প্রতি একরাশ অভিযোগ আর পুরোনো সময়ের ফ্ল্যাশব্যাক দেখানো হয়েছে।

যশ বুকে কষ্ট চেপে রেখে মধুমিতাকে আকড়ে ধরে রাখে। তারপর যশ নিজেই মধুমিতাকে পিঁড়িতে করে বিয়ের মণ্ডপে আনেন। এরপর দেখা যায় অন্য একজনের সাথে অভিনেত্রীর মালাবদল, সাত পাকে বাঁধা, সিঁদুর দান হয়, এবং সবটাই হয় যশের সামনে হয়। মনের কষ্টে শেষে যশ মণ্ডপ ছেড়ে চলে যায়। যশ আর মধুমিতার মিল হয়নি এই গল্পে। বিরহ আর যন্ত্রণা দিয়ে শেষ হয় গল্প। তবে ভিডিয়োর প্রথম দিকে যশমিতার রসায়ন নজরকাড়া। আর তানভিএ কন্ঠ এক আলাদাই মাত্রা দিয়েছে এই ভিডিয়োর। তবে এই ভিডিও শেয়ার হতেই ঘন্টায় লক্ষাধিক ভিউজ। আর হাজার হাজার অনুগামী ভালোবাসা জানিয়েছেন এই মিউজিক ভিডিয়োতে।একবার ও মন রে ভিডিওটি নিজের চোখেই দেখে নিন।