সাধারণ যাত্রীর মতো উঠেছিলেন ট্রেনে! তাপস পালকে দেখেই নায়ক হওয়ার প্রস্তাব দেন পরিচালক

সাধারণ যাত্রীর মতো উঠেছিলেন ট্রেনে! তাপস পালকে দেখেই নায়ক হওয়ার প্রস্তাব দেন পরিচালক


২৯ শে সেপ্টেম্বর হুগলি ১৯৫৮ চন্দননগরে জন্ম নেন অভিনেতা তাপস পাল। বাবা ছিলেন বিখ্যাত চিকিৎসক। সেই মত ছেলেকেও বায়ো মেডিক্যাল নিয়ে ভর্তি হতে হয়েছিল বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজে। কিন্তু ভাগ্যের চাকা কখন কোথায় ঘুরে যায়,তাই তাপস হলেন অভিনেতা,’দাদার কীর্তি” থেকে “ভালোবাসা ভালোবাসা”নিজের অভিনয়ের জন্য আজও মানুষের মনে আছেন তাপস পাল।

কিন্তু কোনো গড ফাদার না থাকলেও কিভাবে এলেন অভিনয় দুনিয়ায়। একদিন ট্রেনে চেপে যাচ্ছিলেন তাপস সেই সময় “দাদার কীর্তি”ছবির সহকারী পরিচালক তাকে ছবির ব্যাপারে জানান,এবং নায়ক হিসেবে ভেবে ফেলেন। রতন চিনতে ভুল করেননি তিনি। সিনেমায় গোবরগণেশ গোলগাল চেহারার একটা ছেলে একমাথা চুল গান গাইছে হেমন্তের লিপে। একেবারে যেন ঘরের ছেলে। এরপর “ভালোবাসা ভালোবাসা”,”মন ময়ুরী”, “করি দিয়ে কিনলাম”, “সাহেব” “গুরুদক্ষিণা”সহ একগুচ্ছ ছবিতে তখন হিট নায়ক তাপস। ঘরের ছেলে তাপসকে ভালোবাসেননি এমন বাঙ্গালী ঘরের গৃহবধূ খুব কম আছে।

আরো পড়ুন -  ‘ফিতেটা কেটে দিলেই সব ফাঁকা', পিঠখোলা পোশাক নিয়ে মৌ বৌদিকে নোংরা মন্তব্য নেটিজেনদের

তবে কেবল বাংলা সিনেমায় নয় হিন্দি ছবি “অবোধ” এ ডান্সিং কুইন মাধুরী দীক্ষিতের সঙ্গে।সেখানেও নিজের অভিনয় দিয়ে মন কেড়েছিলেন তিনি মাধুরী নিজে বহুবার তাপসের তারিফ করেছেন। যা শুনে উৎফুল্ল তাপস বলতেন, দেখছ মাধুরী অতো বড়ো নায়িকা হলেও আমার কথা মনে রেখেছে। সত্যিই তো তাকে কি ভোলা যায়?

আরো পড়ুন -  আমিরের ঠোঁটে চুমু খেয়ে নজির গড়েছিলেন করিশ্মা কাপুর, ভাইরাল চুম্বনের সেই দৃশ্য

এদিন বন্ধু তাপসের জন্মদিনে সোশ্যাল মিডিয়ায় স্মৃতিচারণ করেন প্রসেনজিত চট্টোপাধ্যায়। রাজনীতিতে প্রবেশ করে সাংসদ হয়েছিলেন কিন্তু নিজের শিকড়কে ভোলেননি তাপস। তাই অভিনয় করেছেন নিজের মৃত্যুর আগ পর্যন্ত। ২০১৯ সালে শারীরিক নানান সমস্যায় জর্জরিত তাপস বিদায় নেন পৃথিবী ছেড়ে। পর্দার সাহেব যেমন শেষ সিনে কাদিয়েছিল দর্শককে তেমনি বাস্তবের সাহেব আজও অমলিন দর্শকের মনে

আরো পড়ুন -  কলকাতার মতো গোঁজামিল দেওয়া কাজ মুম্বইতে হয় না, বলিউডে পা রেখেই মন্তব্য অরিত্রর