মাত্র ১৮ বছর বয়সে পালিয়ে বিয়ে, নিজের বিয়ের কথা মা-বাবার থেকে চেপে যান দিব্যা ভারতী

মাত্র ১৮ বছর বয়সে পালিয়ে বিয়ে, নিজের বিয়ের কথা মা-বাবার থেকে চেপে যান দিব্যা ভারতী


সিনেমা জগতের দিব্যা ভারতীর নাম শোনেননি এমন মানুষ মনে হয় নেই। সিনেমা জগতের শুরু থেকেই তাঁর নাম বেশ জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। আবার অল্প বয়সে তিনি বৈবাহিক জীবনে আবদ্ধ হয়ে পড়েন। মাত্র ১৮বছর বয়সেই তিনি বাড়ি থেকে পালিয়ে বিয়ে করেন এমনকি বাবা-মায়ের কাছে সেই বিয়ের কথা চেপে যান।

১৯৯০ সালের দক্ষিণী ছবির হাত ধরে অভিনয় জগতে আসেন এই দিব্যা ভারতী। তারপর ১৯৯১ সালে পা রাখেন বলিউডের মাটিতে। ১৯৯০-১৯৯৩ এ তিনি অভিনয় জগতে রাজত্ব করেন। অভিনয় দক্ষতার সাথে এই অভিনেত্রী ছিলেন সুঠাম চেহারা ও সুন্দর মুখশ্রীর অধিকারী। ১৯৯২ সালে এই অভিনেত্রী প্রযোজক সাজিদ নাদিয়াদওয়ালার সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। বিয়েটা হয়েছিলে সকলের চোখের আড়ালে।

আরো পড়ুন -  অমিতাভ বচ্চনেরই সন্তান সোনু সুদ! তথ্য সামনে আসতেই চাঞ্চল্য নেটদুনিয়ায়

পরবর্তীকালে একটি সাক্ষাৎকারে দিব্যার মা মিতা জানিয়েছিলেন ‘শোলা আর শাভনাম’ ছবির সেটে দিব্যা এবং সাজিদের প্রথম পরিচয় ঘটে। সেখানে সাজিদ নিয়মিত আসতেন অভিনেতা গোবিন্দার ডেট পাওয়ার জন্য। সেই সময় দিব্যা ভারতী একদিন তাঁর মায়ের কাছে জানতে চান যে সাজিদকে তাঁর কেমন লাগে ? উত্তর দিতে গিয়ে তাঁর মা জানান সাজিদকে তাঁর ভালোই লাগে। তারপরেই দিব্যা ভারতী সাজিদকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত স্থির করেন। দিব্যা ভারতীর বাবার কাছে অনুমতি নিতে গেলে তিনি কিছুতেই অনুমতি দেননি। তাই বিয়েটা সারতে হয়েছিল তাঁকে সবার চোখের আড়ালে।

আরো পড়ুন -  পুরনো প্রেমিক সলমানের কাছেই ফিরতে হল ক্যাটরিনাকে, একসঙ্গে পাড়ি দিচ্ছেন রাশিয়া

১৬ বছর বয়সে এই অভিনেত্রী অভিনয় শুরু করেন আর তাঁর জীবনাবসান ঘটে মাত্র ১৮ বছর বয়সে। পুলিশ জানিয়েছিলেন যে মদ্যপ অবস্থায় ব্যালকনি ধরে হাঁটতে হাঁটতে নীচে পড়ে তাঁর মৃত্যু ঘটে। অনেকে আবার তাঁর মৃত্যুর জন্য তাঁর স্বামীকেই দায়ী করেন।

আরো পড়ুন -  Sushmita Sen: ফের পোশাক বিভ্রাট! আর একটু হলেই বেরিয়ে আসত 'গোপনাঙ্গ', কোনোরকমে নিজেকে সামলালেন সুস্মিতা সেন