অদ্ভুত সাজে মঞ্চে অঞ্জু ঘোষ, ‘পাগলী’ বলে ট্রোল হলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়

অদ্ভুত সাজে মঞ্চে অঞ্জু ঘোষ, ‘পাগলী’ বলে ট্রোল হলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়


অঞ্জু ঘোষ মানেই ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ সিনেমার কথা প্রথম মনে আসে। ১৯৮৯ সালে মুক্তি পেয়েছিল বাংলাদেশী চলচ্চিত্র ‘বেদের মেয়ে জোসনা’। সেই সময় ওই সিনেমা খুব একটা জনপ্রিয় হয়নি, তবে সেই গান আর অঞ্জু ঘোষ চরম জনপ্রিয়তায় পৌঁছায়। ফিল্মের থেকেও সুপারহিট হন অভিনেত্রী। জীবনে ১৫০ টির কাছাকাছি বাংলা সিনেমা করেন অঞ্জু ঘোষ। এখনও তার জনপ্রিয়তা গ্রাম বাংলায় আছে।

গত বছর দোল উৎসবে এক ক্লাবের ফাংশন এ এসেছিলেন তিনি। তার জনপ্রিয়তা তাকে মঞ্চে উপস্থিত করে। ওই মঞ্চে এসে দর্শকদের আবদারে গান গেয়ে সকলের মনোরঞ্জন করেন আবার নিজে থেকেই ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ সিনেমার ডায়লগ তুলে ধরেন।

আরো পড়ুন -  সামনে এল সিদ্ধার্থ ও শেহনাজের অপ্রকাশিত মিউজিক ভিডিও, চোখে জল নেটিজেনদের

অবশ্য তার গান ও সিনেমার ডায়লগ শুনে অনেকেই কমেন্ট করে নিজের মতামত জানান। এই যেমন কেউ লেখেন, “আমি তো ছোট সময় ভুতের মুভি দেখেও এত টা ভয় পাইনি, আজ উনাকে দেখে যতটা পেলাম, আজ রাতে লাইট অন করে ঘুমাতে হবে আমার”। আবার কেউ এও লিখেছেন, “একটু গান একটু সিনেমার সংলাপ বলার উপকারীতা কি!??” অনেকে এও বলেছেন, “এতো সেই অঞ্জু ঘোষ নয় এটা তো পাগলী”। এদিকে অনেকে এও বলেছেন, “ডিজিটাল ভূত দেখে আশ্চর্য হলাম!!! মাথার মধ্যে কতগুলো বিরা দিয়ে আসছে, চুল দাত কিছু না, সবই আলগা। তারপরও যুয়ান সাজার জন্য কত চেষ্টা।”

আরো পড়ুন -  টিআরপি কম থাকার জন্য বন্ধ হতে চলেছে বাংলার জনপ্রিয় এই ৩ ধারাবাহিক!

এখন তিনি আর বাংলাদেশের নায়িকা নন শুধু। বর্তমানে কলকাতার সল্টলেকের বাসিন্দা অঞ্জু। ২০১৯ এ তিনি যখন বিজেপিতে যোগ দেন, তখন নাগরিকত্ব নিয়ে বিতর্কের মুখে পড়েছিলেন। তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে অভিযোগ করা হয় বাংলাদেশের নাগরিক অঞ্জুকে ইচ্ছে করে ভারতের নাগরিক বানানো হচ্ছে। তখন বিজেপির তরফ থেকে জানানো হয় যে অভিনেত্রী অঞ্জুর মা-বাবার জন্ম বাংলাদেশে হলেও অঞ্জুর জন্ম কলকাতায়।

আরো পড়ুন -  'ভুল না থাকলেও ক্ষমা চাইতেই হবে শাহরুখকে', অমিতাভের সাথে বাদশার পুরোনো ভিডিও ফের ভাইরাল