কেমো নেওয়ার পর আয়নায় নিজেকে দেখে চমকে উঠেছিলেন ঐন্দ্রিলা, নিজেকে সামলে পর্দায় ফিরছেন অভিনেত্রী

কেমো নেওয়ার পর আয়নায় নিজেকে দেখে চমকে উঠেছিলেন ঐন্দ্রিলা, নিজেকে সামলে পর্দায় ফিরছেন অভিনেত্রী


অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা (Aindrila Sharma), এই মুহূর্তে ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করছেন। পাশে রয়েছেন তাঁর বন্ধু সব‍্যসাচী চৌধুরী (Sabyasachi Chowdhury)। তাঁর কাছে ঐন্দ্রিলা ‘ফিনিক্স’ , যে পাখি পুড়ে গিয়েও আবারও জীবন্ত হয়ে ওঠে। সম্প্রতি ঐন্দ্রিলার একটি পুরানো ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।

সুস্থ থাকাকালীন ঐন্দ্রিলা ‘দিদি নং 1′-এ এসেছিলেন। সেই সময় তিনি বলেছিলেন তাঁর একটি অভিজ্ঞতার কথা। একাদশ শ্রেণিতে পড়ার সময় প্রথমবার ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছিলেন ঐন্দ্রিলা। অভিজ্ঞ ডাক্তার বাবা ও নার্স মায়ের পরম যত্নে ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন তিনি। সেই সময় তাঁকে কেমো দিতে হয়েছিল। কেমো নেওয়ার পর শরীরে খুব জ্বালা করছিল। রাতে চোখে-মুখে জল দিতে বাথরুমে গিয়েছিলেন ঐন্দ্রিলা। কিন্তু সেদিন আয়নায় নিজেকে দেখে চমকে উঠেছিলেন তিনি। মাথার চুল সব পড়ে গিয়েছিল কেমোর জন্য, বিকৃত হয়ে গিয়েছিল চোখ-মুখ। খুব ভয় পেয়ে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু পরক্ষণেই মনে হয়েছিল, নিজেকে দেখে নিজে যদি এত ভয় পান, তাহলে তাঁদের প্রিয়জনদের কি অবস্থা হতে পারে?”

আরো পড়ুন -  রাতুল-শ্রীতমার অনস্ক্রিন কেমিস্ট্রি কি অভিষেকের সাথে বিচ্ছেদের কারন! জোড় জল্পনা নেট দুনিয়ায়

সেবার 2016 সালের জুলাই মাস পর্যন্ত টানা চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন ঐন্দ্রিলা। পড়াশোনা শেষ করে শুরু করেছিলেন অভিনয়। ইদানিং ‘জীয়নকাঠি’ সিরিয়ালে অভিনয় করছিলেন তিনি। কিন্তু হঠাৎই চলতি বছর সরস্বতী পুজোর সময় আবারও অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। আবারও ধরা পড়ে ক্যান্সার। দিল্লির একটি বেসরকারি হসপিটালে শুরু হয় ঐন্দ্রিলার চিকিৎসা। ছুটে গিয়েছিলেন সব‍্যসাচী। পরম যত্নে ঐন্দ্রিলাকে ওষুধ খাইয়েছেন তিনি। প্রথম কেমোর পর টালিগঞ্জ ফিরে শুটিং শুরু করেছিলেন ঐন্দ্রিলা। কিন্তু পরবর্তী কেমোর পর থেকে ডাক্তার তাঁকে বিশ্রাম নিতে বলেছেন।

সব‍্যসাচী জানিয়েছেন, ঐন্দ্রিলার অস্ত্রোপচার সফল হয়েছে। এই মুহূর্তে কেমোথেরাপি চলছে। সুস্থ হতে একটু সময় লাগবে ঐন্দ্রিলার। আবারও শুটিং ফ্লোরে ফিরবেন তিনি। কারণ তিনি যে সব‍্যসাচীর ‘ফিনিক্স’।